বানান হয়ে ওঠা সময়

আমি প্রেমের ফিল্মমেকার — অমিতাভ রেজা অমিতাভ রেজা চৌধুরী।

102
1339 views

অমিতাভ রেজা’র ১ ঘণ্টা ১২ মিনিটের ভিডিও আলাপ শুনতে ক্লিক করতে পারেন উপরের ভিডিওতে ।।



আয়নাবাজি’র পরিচালক অমিতাভ রেজা টক দিতে আসছিলেন ‘সিনেমা ফাইভ আলাপ’ নামের আয়োজনে । এইটা একটা নতুন প্ল্যাটফর্ম যার কর্ণধার ম্যুভিয়ানা ফিল্ম সোসাইটি’র সভাপতি বেলায়াত হোসেন মামুন। মামুন এই আলাপে সূত্রধরের ভূমিকায় ছিলেন । ‘সিনেমা ফাইভ’ এমন একটা প্ল্যাটফর্ম যেখানে, বাংলাদেশের তরুণ চলচ্চিত্র নির্মাতারা নিজস্ব চলচ্চিত্র নির্মাণ এবং বিপননের সম্মিলিত প্ল্যাটফর্ম হিসাবে একে গড়ে তুলতে চান বলে জানালেন । এই প্ল্যাটফর্মের ব্যানারে এইবারের আলাপের বিষয় ছিল ‘চলচ্চিত্রে গল্প বলা’ ।

অডিটরিয়ামে তরুণ নির্মাতারা বেশি ছিলেন বলে স্বাভাবিক ভাবেই আলাপের ঢং এবং উপস্থাপনা তাদের মাথায় রেখেই নির্মাতা অমিতাভ রেজা করেছেন । নিজের সিনেমা নির্মাণ অভিজ্ঞতা থেকে শেয়ার করেছেন নানান কিছু । যেহেতু “আয়নাবাজি” তার প্রথম ছবি এবং এখনো হলে চলছে, ফলে কথা শুরু করেছেন আয়নাবাজি’র নামেই ।

বাজারে আয়নাবাজি নিয়ে ব্যাপক প্রশংসা, নিন্দা এবং নানানমুখি তর্ক মাথায় রেখে খোলামেলা কথা বলেছেন অমিতাভ রেজা । বলেছেন আয়নাবাজি সিনেমার ন্যারেটিভ স্ট্রাকচার, সিনেমার লোকাল ল্যাঙ্গুয়েজ তথা বাংলাদেশের সিনেমার ল্যাঙ্গুয়েজ নিয়ে । পরিচালক হিসাবে নিজের শরিলে নিজের সিনেমা-গল্প-চরিত্রকে কন্সিভ করতে যেয়ে, যে যে চর্চা, ভাবনা, সম্পর্কের লড়াইয়ের মধ্য দিয়ে নিজেকে নিয়ে যেতে হয়েছে, সেইসব সিনেমার পিছনের গল্প নিয়েও কথা বলেছেন । বলেছেন, ফিল্মমেকিং একটা ক্র্যাফট যেটা আপনার বডিতে থাকতে হবে, এটা সাধনা করে হয়ে যাবে, ব্যাপারটা তা না ।

নিজের ছবির সীমাবদ্ধতা নিয়ে কথা বলতে যেয়ে নিজেই সমালোচনা করে বলেছেন, এই ছবি অনেক প্রশংসা পেলেও এইটা আমার প্রথম ছবি, বেস্ট ছবি না ।  আমি যে ছবিতে বিশ্বাস করি তেমন ছবি না ।

অমিতাভ পরিচালকের দার্শনিক অবস্থান ব্যাখ্যা করতে যেয়ে বলেছেন, একজন পরিচালকের কাজ হচ্ছে সত্যের অন্বেষণ ।  অনুসন্ধানের এই আনন্দের জন্যই আমরা সিনেমা নির্মাতারা সিনেমা বানিয়ে যাই । আমরা সত্যকে ধরতে পারি না, স্পর্শ করতে পারি না; কিছু সত্যকে অনুসন্ধান করতে চাই ।



সমালোচকদের কথা মাথায় রেখে বলেছেন, আমার ছবি নিয়ে আমি সবচেয়ে বেশি সমালোচনা করতে পারি । আমি প্রতিটা ভুল জানি আমার সিনেমার । জানিয়েছেন এই ছবির লোকাল ভার্সন ২ ঘণ্টা ৩০ মিনিট কিন্তু আন্তর্জাতিক কাট হচ্ছে প্রায় ৪০ মিনিটের ।

রবি টিভিতে আপলোড নিয়ে বিতর্ক, সেখান থেকে ছবি পাইরেসির চেষ্টা, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়ানো নানান গুজব নিয়ে আক্ষেপ করেছেন । বলেছেন, আমরা রবি টিভিতে আপলোড করে ঠিক সিদ্ধান্ত নেই নাই । কারণ আমাদের দেশের মানুষের আচরণ ঠিক নেই । তারা ৪০০ বছর পিছিয়ে আছেন এইসব ক্ষেত্রে ।

এমন সব জরুরি এবং স্পর্শকাতর বিষয় নিয়ে কথা বলতে বলতে একটা ফিল্মমেকিং প্রসেসে ‘চিফ এডি থেকে বাকি যারা সিনেমায় কাজ করে তারা কিন্তু মানুষ না- টেকনিশিয়ান, ওয়ানলি ডিরেক্টর মানুষ’ কাজের এমন ক্রিয়েটিভ পদ্ধতি সম্পর্কে কথা বলা নতুন নির্মাতাদের কাজে লাগবে হয়ত। আলাপের জরুরত বিবেচনায় বানান সামান্য এডিট করে প্রায় পুরা আলাপের ভিডিও রেকর্ডই এখানে হুবুহু প্রচার করছে । আপনাদের ভাল লাগলে আমাদের পরিশ্রম কাজে লাগবে ।

সব শেষে ম্যুভিয়ানা ফিল্ম সোসাইটি পরিবারকে, বিশেষ করে বেলায়াত হোসেন মামুনকে ধন্যবাদ দিচ্ছি এমন একটা আয়োজনের জন্য । সবাইকে ভিডিওতে আলাপখানা দেখতে আমন্ত্রণ ।


[icon size=”” icon=”icon-user” display=”true” ][/icon]  মোহাম্মদ রোমেল ।

 



 


You Might Be Interested In

LEAVE A COMMENT